বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ

নিউজ ডেস্ক

বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ
বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন।

বুধবার সন্ধ্যায় এ সাক্ষাৎ করেন তারা। রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদিনের বরাত দিয়ে বাসসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় বিষয়াদি বিশেষ করে তার সাম্প্রতিক যুক্তরাষ্ট্র ও পরবর্তীতে ভারত সফর নিয়ে আলোচনা করেছেন। 

তিনি বলেন, সরকার প্রধান রাষ্ট্রপতিকে তার সাম্প্রতিক যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত সফর সম্পর্কে অবহিত করেন এবং রাষ্ট্রপতির কাছে এ সংক্রান্ত দু’টি প্রতিবেদন হস্তান্তর করেন।

প্রধানমন্ত্রী গত ৩ থেকে ৬ অক্টোবর ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের ইন্ডিয়া ইকোনমিক সামিটে যোগ দিতে ৪ দিন ভারত সফর করেন। এ সময় তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন।

এর আগে ২২ থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর তিনি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ (ইউএনজিএ)’র ৭৪তম অধিবেশনে যোগ দিতে ৮দিনব্যাপী যুক্তরাষ্ট্র সফর করেন।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে বঙ্গভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাক্ষাৎ করেন। এ সময় রাষ্ট্রপতির পত্নী রাশিদা খানম উপস্থিত ছিলেন-পিআইডি

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে বঙ্গভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাক্ষাৎ করেন। এ সময় রাষ্ট্রপতির পত্নী রাশিদা খানম উপস্থিত ছিলেন-পিআইডি

প্রেস সচিব বলেন, রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত সফরের সময় তিনটি মর্যাদাবান পুরস্কার পাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানান।

যুক্তরাষ্ট্র সফরের সময় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে সফল টিকাদান কর্মসূচি ও যুব সমাজের দক্ষতা উন্নয়নের জন্য দু’টি আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করেন।

গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিনেশন অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন প্রধানমন্ত্রীকে ভ্যাকসিন হিরো পুরস্কার প্রদান করেন। এছাড়া তাকে ‘চ্যাম্পিয়ন অব স্কিল ডেভেলপমেন্ট ফর ইয়ুথ’ পুরস্কারও প্রদান করা হয়।

পরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নয়াদিল্লীতে আঞ্চলিক শান্তি ও সমৃদ্ধি বজায় রাখার ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ‘ঠাকুর শান্তি পুরস্কার-২০১৮’ লাভ করেন। এশিয়াটিক সোসাইটি, কলকাতা নয়াদিল্লীর তাজমহল হোটেলে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তাকে এ পুরস্কার প্রদান করে।

প্রেস সচিব বলেন, বৈঠকে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী পরস্পরের স্বাস্থ্য সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেন। প্রধানমন্ত্রী সন্ধ্যা ৭টায় বঙ্গভবনে পৌঁছলে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও তার স্ত্রী রাশিদা খানম এক তোড়া ফুল দিয়ে তাকে অভ্যর্থনা জানান। প্রধানমন্ত্রীও রাষ্ট্রপতিকে একটি ফুলের তোড়া উপহার দেন।