1. [email protected] : Mohiuddin Lasker : Mohiuddin Lasker
  2. [email protected] : Prodip Kumar Sarkar : Prodip Kumar Sarkar
  • E-paper
  • English Version
  • শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৩২ অপরাহ্ন

রাজনগর হাওর কাউয়াদিঘীর পূর্বাঞ্চলের কৃষকরা চলাচলের জন্য রাস্তা সংস্কার করেদেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ৩৮৩ বার পঠিত

সৈয়দ বয়তুল আলী: মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার হাওর কাউয়াদিঘীর পূর্বাঞ্চলের কৃষকরা হাওরে চলাচলের জন্য রাস্তা সংস্কার করেদেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী জহিরুল ইসলাম বাচ্ছু। এতে আন্দিত স্থানীয় কৃষক, খামারী ও রাখালরা। বাচ্ছু উপজেলার পাঁচগাঁও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম মো.ইসমাইল মিয়া’র ছেলে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার পাঁচগাঁও ও মনসুর নগর ইউনিয়নের প্রায় ১৫ গ্রামের মানুষ হাওরে চলাচলের জন্য কোন রাস্তা না থাকায় যুগ যুগ ধরে তাদের দূর্ভোগ পুয়াতে হচ্ছে। খেতের জমিতে কাজ করতে ও মাঠে গরু মহিষ চড়াতে হয় অনেক কষ্ট করতে হয় এ অঞ্চলের মানুষের। তারা স্থানীয় চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যদের সাথে একাধিক বার এ রাস্তাটি সংস্কারের জন্য যোগাযোগ করলেও এর কোন সুরাহ পাননি। সর্বশেষে জহিরুল ইসলাম বাচ্ছু তার নিজেস্ব অর্থায়নে কুবজার এলাকায় এ রাস্তা তৈরি করে দেন। এতে আনন্দিত এলাকার কৃষক, রাখাল ও সাধারন মানুষ।
কৃষক শাহাজান মিয়া, সেপুর সহ অনেকেই বলেন, হাওরে চলাচলের জন্য রাস্তার জন্য আমরা অনেক কষ্ট করেছি। এখন রাস্তাটি হলে আমাদে কষ্ট কিছুটা হলেও অনেকটা কমে আসবে।
একাধিক খামারী ও রাখাল বলেন, আমরা প্রতিদিন গরু মহিষ নিয়ে হাওরে খোলা মাঠে চড়াতে যাই। কিন্তু কোন রাস্তা না থাকার কারনে অনেক সমস্যা হতো। কোথায়ও কোথায়ও পানি ও কাঁদা দিয়ে নিয়ে যেত হত।
যুক্তরাজ্য প্রবাসি জহিরুর ইসলাম বাচ্ছু বলেন, জহিরুল ইসলাম বাচ্ছু বলেন, কুবঝার এলাকার শস্যসুতা থেকে দিকলা গাং পর্যন্ত কোনো কোন রাস্তা নাই। হাওরে বোর ফসল বুনতে ও হাওর থেকে ধান আনতে চরম দূর্ভোগের মধ্যে পড়েন প্রতি বছর। রাখালরা মাঠে গরু, মহিষ নিয়ে যেতে কষ্টেয় পড়েন। এ সব সমস্যার বিষয় নিয়ে এলাকার লোকজন আমার সাথে যোগাযোগ করলে আমি তাদের ন্যায্য দাবির কথা ভেবে তাদের কষ্ট লাগবের জন্য আমার সাধ্য মত চেষ্টা করেছি রাস্তাটা করে দিতে। এর আগেও সুরুফুরা একটি রাস্তায় কাল বার্ড না থাকায় পথচারীরা অনেক সমস্যায় ভুগছেন, আমি সেখানেও সাধারণ মানুষের কথা ভেবে কালবার্ড করে দিয়েছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..